ক্যাশ-আউটে সাড়ে ১৮ টাকার বেশি নেয়া চুরি

মোবাইলে লেনদেনে ক্যাশ-আউটে ২০ টাকার মধ্যে দেড় টাকা বেশি নেয়াকে চুরি বলেছেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার।

শনিবার টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ (টিআরএনবি) আয়োজিত ‘প্রতিযোগিতা ও অংশীদারিত্বের প্রেক্ষাপট: প্রসঙ্গ এমএফএস’ শীর্ষক এক ওয়েবিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এক কথা বলেন তিনি।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। টিআরএনবি সভাপতি রাশেদ মেহেদীর সভাপতিত্বে ওয়েবিনারটিতে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সমীর কুমার দে।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক সর্বোচ্চ সীমা করে দিয়েছিল হাজারে সাড়ে ১৮ টাকা, তাই নেওয়ার কথা। অথচ সেখানে এখন ২০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। দেড় টাকা নিয়ে কেউ প্রতিবাদ করছে না, কিন্তু দেড় টাকায় তো হাজার হাজার কোটি টাকা হয়ে যায়। এটা সরাসরি চুরি করা হচ্ছে।

এ সময় তিনি এমএফএসের চার্জ কমানোর ওপর গুরুত্বরোপ করেন।

প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারম্যান মো. মফিজুল ইসলাম বলেন , বাংলাদেশ ব্যাংক যে সার্ভিস চার্জটি নির্ধারণ করে দিয়েছে, সাড়ে ১৮ টাকার ওপরে না নেওয়ার। এটা যদি না মানা হয়, তাহলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর আবুল কাশেম বলেন, বিকাশের দোকানে কি ১৮ টাকা ৫০ পয়সা ব্যানার লাগানো যায় না? কেন হাজারে ২০ টাকা নেওয়া হয়? ‘বিকাশ একটি লাইসেন্সড প্রতিষ্ঠান। তাদের মাধ্যমে এমন কোটি কোটি টাকা কেন প্রতারণা করছে? এ বিষয়টি সুরাহা করা দরকার’ উল্লেখ করেন তিনি।